statistics

ঢাবিতে দ্বিতীয়বার ভর্তি পরীক্ষার সুযোগের আবেদন খারিজ

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে (ঢাবি) দ্বিতীয়বার ভর্তি পরীক্ষার সুযোগ বাতিলের সিদ্ধান্ত নিয়ে শিক্ষার্থীদের অভিভাবকদের করা রিট আবেদন খারিজ করে দিয়েছেন হাইকোর্ট। ফলে ঢাবিতে দ্বিতীয়বার ভর্তি পরীক্ষায় অংশ নেওয়ার সুযোগ থাকলো না। High_Court

এ বিষয়ে জারি করা রুলের নিষ্পত্তি করে বুধবার (৮ জুলাই) এ রায় দেন বিচারপতি ফারাহ মাহবুব ও বিচারপতি কাজী মো. ইজারুল হক আকন্দের হাইকোর্ট বেঞ্চ এ দিন ধার্য করেন।

এ রায়ের পরে আদালত চত্বরে শিক্ষার্থীরা কান্নায় ভেঙ্গে পড়ে।

এর আগে মঙ্গলবার (৭ জুলাই) আদালতে আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন অ্যাডভোকেট সুব্রত চৌধুরী। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষে শুনানি করেন অ্যাডভোকেট এ এফ এম মেজবাহ উদ্দিন।

রাষ্ট্রপক্ষে উপস্থিত ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল অমিত তালুকদার।

রায়ের পরে অ্যাডভোকেট এ এফ এম মেজবাহ উদ্দিন সাংবাদিকদের বলেন, দ্বিতীয়বার ভর্তি পরীক্ষার সুযোগ বাতিল করে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ যে সিদ্ধান্ত নিয়েছিলো তা হাইকোর্টের রায়ে বহাল রইলো।

তিনি বলেন, এভাবে দ্বিতীয়বার ভর্তি পরীক্ষার সুযোগের কারণে অনেক আসন খালি থেকে যায় যেটা জাতীয় ক্ষতি। এজন্য কর্তৃপক্ষ এ পদ্ধতি বাতিল করেছে।

এর আগে এক রিট আবেদনের শুনানি নিয়ে গত ১৬ মার্চ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে (ঢাবি) দ্বিতীয়বার ভর্তি পরীক্ষার সুযোগ বাতিলের সিদ্ধান্ত কেন অবৈধ ও বেআইনি ঘোষণা করা হবে না তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেছিলেন হাইকোর্ট।

একই সঙ্গে এ সিদ্ধান্ত পরিবর্তন করে নতুন সিদ্ধান্ত নেওয়ার কেন নির্দেশ দেওয়া হবে না তাও জানতে চান আদালত।

মিনারা বেগম ও রুহুল আমিনসহ ২০১৫-১৬ শিক্ষাবর্ষে দ্বিতীয়বার ভর্তিচ্ছুদের ২৬ জন অভিভাবক এ রিট আবেদনটি দায়ের করেন। ২০১৪ সালের ১৫ অক্টোবর ঢাবিতে দ্বিতীয়বার ভর্তি পরীক্ষা দেওয়া যাবে না বলে সিদ্ধান্ত নেয় কর্তৃপক্ষ।

তথ্যসূত্রঃ বাংলানিউজ

পোষ্টটি লিখেছেন: লেখাপড়া বিডি ডেস্ক

লেখাপড়া বিডি ডেস্ক এই ব্লগে 1244 টি পোষ্ট লিখেছেন .

লেখাপড়া বিডি বাংলাদেশের প্রথম শিক্ষা বিষয়ক বাংলা কমিউনিটি ব্লগ।

2 comments

  1. Mohammad Rasel

    May Allah help us.

  2. অন্তত পক্ষে এবার সুজোগ দেয়া উচিত।কেননা এ ঘোষনা গত পরিক্ষার পর দেয়া হয়েছে। আগে দিলে সে রকম পড়া শুনা করতাম। ভাছিলাম 2nd time আছেই.

Leave a Reply

Your email address will not be published.