statistics

ভর্তি সংক্রান্ত বিভ্রান্তিগুলো

ভর্তি সংক্রান্ত যেসব ব্যাপারে বেশি বিভ্রান্ত হতে হয়

১ । জিপিএর নম্বর বের করবেন যেভাবে-
– ১২০ এ লিখিত পরীক্ষা ও বাকি ৮০ হবে জিপিএ’র নম্বর । এর জন্য
৪র্থ বিষয় বাদে SSC GPA*6+HSC GPA*10 ,তাহলেই ৮০তে মোট নম্বর পাওয়া যাবে।

২। আগে ফরম পূরণ করবেন নাকি পরে??
– কেন্দ্র ঢাবিতে পড়লে পরীক্ষা সুন্দর ,সাবলীল ও চিন্তামুক্তভাবে দেয়া যায় ।
আপাতত ফরম শেষ সময়ে পূরণ করে কোনো অতিরিক্ত সুবিধা পাওয়া যায়না । ধরেন যদি মোট সিট ২টা হয়,
“ক” এর সিরিয়াল নম্বর -1320
“খ” এর সিরিয়াল নম্বর -1321
“গ” এর সিরিয়াল নম্বর -1325 হয়
আর তিনজনই যদি একই নম্বর পায় তবে সিরিয়াল অনুযায়ী লিস্ট প্রদান করা হবে। সেক্ষেত্রে “গ” ব্যক্তি পিছিয়ে থাকবেন । আর মেরিট লিস্টে এগিয়ে থাকবে ক ও খ । তাই বুঝতেই পারছেন যত তাড়াতাড়ি সম্ভব ফরম পূরণ করাই ভাল

৩। একসাথে ফরম পূরণ করলে কি সিট একসাথে পড়ে?
-না,আপনারা দুই বন্ধু যদি একসাথে ঘুম থেকে জেগে মধ্যরাতেও ফরম পূরণ করেন তবুও সিট পাশাপাশি পড়বে না ।

৪। কোনো ব্যাংকে টাকা জমা দিলে কি অতিরিক্ত কোনো সুবিধা পাওয়া যাবে?
– না, জনতা,সোনালী,অগ্রণী ও রূপালীর যে কোনো শাখায় জমা দিলেই হবে ।এক্ষেত্রে কোনো শাখাকেই অগ্রাধিকার দেয়া হয়না

৫। Admit Card কোথায় পাব?
– টাকা ব্যাংকে জমা দেয়ার পর, তা বিশ্ববিদ্যালয়ে এসে পৌছালে সংশ্লিষ্ট ইউনিটের “পেমেন্ট” কলামে সবুজ রঙের টিক চিহ্ন দেখা যাবে ।পরবর্তীতে প্রবেশ পত্র যেদিন থেকে দেয়া হবে সেদিন ওয়েবসাইটে নিজ নিজ ইউনিটে প্রবেশ করে Admit Card ডাউনলোড করে নিতে পারবেন।

পোষ্টটি লিখেছেন: বি.এম. মুন্না

এই ব্লগে 60 টি পোষ্ট লিখেছেন .

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *