statistics

‘বঙ্গবন্ধু স্কলার’ বৃত্তি আবেদনের সময় ১৫ এপ্রিল পর্যন্ত বৃদ্ধি

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী মুজিব বর্ষ উপলক্ষে বিশ্ববিদ্যালয়পড়ুয়া মেধাবী শিক্ষার্থীদের স্নাতকোত্তর পর্যায়ে স্কলারশিপ দেওয়া হচ্ছে। শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের প্রধানমন্ত্রীর শিক্ষা সহায়তা ট্রাস্টের উদ্যোগে দেশের বিভিন্ন সরকারি ও বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের স্নাতকোত্তর পর্যায়ের শিক্ষার্থীদের কাছে ‘বঙ্গবন্ধু স্কলার’ নামে এ আবেদনপত্র চাওয়া হয়েছে। আগে ২৮ মার্চ পর্যন্ত আবেদনের শেষ সময় ছিল। এবার আবেদনের শেষ সময় বাড়িয়ে ১৫ এপ্রিল করা হয়েছে।

আবেদনের যোগ্যতা: আবেদনের যোগ্যতায় বলা হয়েছে এসএসসি ও এইচএসসিতে জিপিএ-৫। আর স্নাতকে জিপিএ/সিজিপিএ-৩.৭০ (৪-এর স্কেলে)।

আবেদন করার শেষ তারিখ: ১৫ এপ্রিল ২০২১

‘বঙ্গবন্ধু স্কলার’

সম্পুর্ন বিজ্ঞপ্তি পিডিএফ ডাউনলোড

মুজিব বর্ষ উপলক্ষে ১৩ জন অনন্য মেধাবী শিক্ষার্থী পাবেন ‘বঙ্গবন্ধু স্কলার’ স্বীকৃতি। মেধাবীদের স্বীকৃতি ও উৎসাহিত করতে দেশের সব সরকারি-বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে স্নাতকোত্তর পর্যায়ের শিক্ষার্থীদের মধ্য থেকে বঙ্গবন্ধু স্কলার নির্বাচন করে দেওয়া হবে বৃত্তি। প্রধানমন্ত্রীর শিক্ষা সহায়তা ট্রাস্ট এ বৃত্তি ও অনন্য স্বীকৃতি দেওয়ার উদ্যোগ নিয়েছে।

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, ১৩টি অধিক্ষেত্র থেকে একজন করে অনন্য মেধাবী শিক্ষার্থী পাবেন এ স্বীকৃতি। সামাজিক বিজ্ঞান, কলা ও মানবিক, ব্যবসায় শিক্ষা, আইন, ভৌতবিজ্ঞান, ইঞ্জিনিয়ারিং অ্যান্ড টেকনোলজি, বিজ্ঞান, জীববিজ্ঞান, শিক্ষা ও উন্নয়ন, চিকিৎসা, চারুকারু, কৃষিবিজ্ঞান ও মাদ্রাসা শিক্ষা অধিক্ষেত্রে অনন্য মেধাবী স্নাতকোত্তর পর্যায়ের ১৩ শিক্ষার্থী এ স্বীকৃতি ও বৃত্তি পাবেন।

প্রধানমন্ত্রীর শিক্ষা সহায়তা ট্রাস্ট প্রকাশিত বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, বঙ্গবন্ধু স্কলার নির্বাচন ও বৃত্তি প্রদান নির্দেশিকায় দেওয়া শর্ত ও যোগ্যতা অনুসারে শিক্ষার্থীদের আবেদন করতে হবে। এ নির্দেশিকা ও আবেদন ফরম প্রধানমন্ত্রীর শিক্ষা সহায়তা ট্রাস্টের ওয়েবসাইটে (www.pmeat.gov.bd) প্রকাশ করা হয়েছে।

আবেদন পদ্ধতি: সরকারি-বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে স্নাতকোত্তর শ্রেণিতে ভর্তির নিশ্চয়তা পেয়েছেন বা ভর্তি হওয়া এমন শিক্ষার্থী বঙ্গবন্ধু স্কলার বৃত্তির জন্য শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে আবেদন করতে পারবেন। আবেদনপত্রের সঙ্গে সব শিক্ষাগত যোগ্যতার সনদ, নম্বরপত্র ও সহশিক্ষা কার্যক্রমে অর্জনের (এক্সট্রা কারিকুলাম অ্যাচিভমেন্ট) সনদের সত্যায়িত কপি সংযোজন করতে হবে। পূরণ করা ফরম ১৫ এপ্রিলের মধ্য প্রধানমন্ত্রী শিক্ষা সহায়তা ট্রাস্টের ব্যবস্থাপনা পরিচালক বরাবর (বাড়ি নম্বর ৪৪, সড়ক নম্বর ১২/এ, ধানমন্ডি, ঢাকা) রেজিস্টার্ড ডাকযোগে বা সরাসরি পৌঁছাতে হবে।

পোষ্টটি লিখেছেন: মোঃ মিলন ইসলাম

এই ব্লগে 434 টি পোষ্ট লিখেছেন .

মোঃ মিলন ইসলাম এই ব্লগের একজন ব্লগার। এই সাইটে গুরুত্বপূর্ণ কিছু পোষ্ট তুলে ধরেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *