statistics

ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি টুর্ণামেন্ট খেলতে মালেয়শিয়া যাচ্ছে ড্যাফোডিল

আসছে নভেম্বরে ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি ক্রিকেট টুর্ণামেন্ট খেলতে মালেশিয়া যাচ্ছে ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি ক্রিকেট দল। দীর্ঘ এক মাসের বেশী সময় ধরে কঠোর অনুশীলন করে আসছে ড্যাফোডিলের ক্রিকেটাররা। বাংলাদেশের হয়ে এক মাত্র দল হিসেবে এই টুর্ণামেন্টে অংশ গ্রহণ করতে যাচ্ছে ড্যাফোডিলের এই তরুণ ছেলেরা।
অস্ট্রেলিয়া, সাউথ আফ্রিকাসহ আটটি দেশের অংশগ্রহনে ৯ নভেম্বর থেকে শুরু হবে ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি ক্রিকেট টুর্ণামেন্ট। আর মাত্র ২ সপ্তাহ পর নভেম্বরের ৬ তারিখ মালেশিয়ার উদ্দেশ্যে রওনা দিবে ড্যাফোডিল।resize_1413820421

মালেশিয়া সফরের আগে নিজেদের প্রস্তুতিটা বেশ ভালোভাবেই সেরে নিচ্ছে ড্যাফোডিলের ছেলেরা। সফরে ভালো করার উদ্দেশ্যে সোমবার ইয়াং টাইগারস ক্রিকেট একাডেমির সাথে একটি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলে ড্যাফোডিল। অনুশীলন ম্যাচে ইয়াং টাইগারস একাডেমির বোলারদেরকে চাপের মধ্যে রেখে দাপুটে ব্যাটিং করে ড্যাফোডিলের ব্যাটসম্যানরা।

মালেশিয়া সফরকে সামনে রেখে সোমবার অর্ধসমাপ্ত এই অনুশীলন ম্যাচে টসে জিতে প্রথমে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেয় ইয়াং টাইগারসের অধিনায়ক। মাত্র ২৯ ওভারে সবগুলো উইকেট হারিয়ে ইয়াং টাইগারস সংগ্রহ করে ১৭০ রান।

ড্যাফোডিলের হয়ে অধিনায়ক ইসলাম ও রাকিব নেন দুটি করে উইকেট। এছাড়া আদদ্বীন সজিব,ওলি, নাইম, ফয়সাল ও রাজু নেন একটি করে উইকেট।

ইয়াং টাইগারসের ১৬৯ রানকে তাড়া করতে নেমে প্রথমে কিছুটা ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়ে ড্যাফোডিল। মাত্র ৪৫ রানেই ৩ উইকেট হারায় ড্যাফোডিল। পরে অধিনায়ক ইসলাম নিলয়কে সাথে নিয়ে ৩৫ রানের পার্টনারশিপ করেন। নিলয় দলকে কিছুটা এগিয়ে নিলেও ব্যাক্তিগত ২০ রান করে রানার বাউন্সি একটি বলে ফিরতে হয় তাকে। নিলয় আউট হওয়ার পরে পরেই ১৭ বলে ব্যাক্তিগত ২৬ রান করে বিদায় নেন ইসলাম। দলের এমন বিপর্যয়ে আগমন ঘটে মিডলঅর্ডার ব্যাট্সম্যান আদদ্বীন সজিবের। পুরো দলের দায়িত্ব নিয়ে মাঠে নেমে কিছুটা চাপের মধ্যে থাকলেও জর্জকে সাথে নিয়ে ড্যাফোডিলকে সামনে থেকে নেতৃত্ব দেন সজিব।

ড্যাফোডিলের এমন বিপর্যয়ে উল্লাসিত ছিল ইয়াং টাইগারস দল। কিন্তু আগের ব্যাট্সম্যানদের মতো যেন ভুল করলেন না আদদ্বীন সজিব। রানের খাতাটা খোলেন বাউন্ডারি দিয়ে। প্রথম বলে চার মেরেই শান্ত হন নি এই উদীয়মান ক্রিকেটার। যেন ইয়াং টাইগারসের বোলারদের উপর এক রকম প্রতিশোধ তুলে নিলেন তিনি। ব্যাটিংয়ে নামার পরে প্রথম ৩ বলে ৩টা চারের মার। জর্জকে সাথে নিয়ে করেন ৯০ রানের পার্টনারশিপ। জর্জ ২৬ রান করে আউট হলেও ৩১ বলে ব্যাক্তিগত ৬৭ রান করে ১৬৮ রানের মাথায় বোল্ড আউট হন মারমুখি ব্যাট্সম্যান।

আদদ্বীন সজিব আউট হওয়ার পরে আলো স্বল্পতার জন্য দুই দলের অধিনায়কের সিদ্ধান্তে ম্যাচটি শেষ করে দেওয়া হয়। ম্যাচ শেষে ব্যাট্সম্যানদের প্রশংসা করে ড্যাফোডিলের অধিনায়ক ইসলাম নিউজ পেজ২৪কে জানান, ‘‘ব্যাট্সম্যানরা পজেটিভ ক্রিকেট খেলেছে। প্রথম দিকে ড্যাফোডিল কিছুটা চাপে থাকলেও পরে অন্যান্য ব্যাট্সম্যানরা দলকে সেখান থেকে বের করে আনতে সক্ষম হয়। দলের হয়ে আদদ্বীন সজিব অসাধারণ ব্যাটিং করে। সবমিলিয়ে আমি ড্যাফোডিলের মালেশিয়া সফর নিয়ে খুবই আশাবাদী।’’

সংবাদঃ newspage24.com

রিপোর্টারঃ গিয়াস আদদ্বীন সজিব

পোষ্টটি লিখেছেন: হুসাইন সাদ্দাম

হুসাইন সাদ্দাম এই ব্লগে 24 টি পোষ্ট লিখেছেন .

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *