statistics

প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ নিয়ে গুজব ছড়ানো হচ্ছে: মহাপরিচালক

‘আগামী ২৪ মে থেকে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে নিয়োগ পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে’ বলে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে যা কিছু প্রচার করা হচ্ছে, তা পুরোপুরি গুজব বলে জানিয়েছেন প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতরের মহাপরিচালক এ এম মনসুরুল আলম।

শনিবার এ কথা জানান তিনি। মনসুরুল আলম বলেন, প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার বিষয়ে কোনো তারিখ এখনো নির্ধারণ করা হয়নি। এমন কিছু হলে অবশ্যই তা গণমাধ্যমের মাধ্যমে প্রকাশ করা হবে।

ফেসবুকে ছড়ানো হচ্ছে- ‘দেশের সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক নিয়োগের লিখিত পরীক্ষা চার ধাপে শুরু হবে আগামী ২৪ মে। প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতর এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানিয়েছে। আগামী ২৪ ও ৩১ মে এবং ১৪ ও ২১ জুন সকাল ১০টায় পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।’ এই তথ্যগুলো পুরোপুরি অসত্য বলে জানান মহাপরিচালক।

প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতর সূত্র জানায়, করোনার মধ্যে বিসিএসের প্রিলিমিনারি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হওয়ায় একটি মহল একে পুঁজি করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এমন অসত্য তথ্য ছড়াচ্ছে।

প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতরের পরিচালক (পলিসি অ্যান্ড অপারেশন) মনীষ চাকমা বলেন, বিসিএসে পদের সংখ্যা ২ হাজার আর প্রাথমিকে ৩২ হাজার শিক্ষক নিয়োগ দেয়া হবে। মাঠ পর্যায়ে নিয়োগ পরীক্ষার কোনো নির্দেশনা নেই। এ বিষয়টি একদম প্রাথমিক স্তরে রয়েছে। আমরা কবে করবো তাও জানি না। তবে এটাও ঠিক নিয়োগ পরীক্ষার বিষয়ে গুজবের বিষয়টি আমাদের নজরে আছে।

তিনি আরো বলেন, প্রতারক চক্রের অভাব নেই। সারাদেশে বেশকিছু প্রতারক চক্র এভাবে সাধারণ মানুষকে প্রতারণা করে আসছে। তবে এ ধরনের তথ্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার না করতে আবেদনকারীদের অনুরোধ করেন তিনি।

পোষ্টটি লিখেছেন: মোঃ মিলন ইসলাম

এই ব্লগে 397 টি পোষ্ট লিখেছেন .

মোঃ মিলন ইসলাম এই ব্লগের একজন ব্লগার। এই সাইটে গুরুত্বপূর্ণ কিছু পোষ্ট তুলে ধরেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *